Thursday , May 23 2019
ব্রেকিং নিউজ :

Home / সারাদেশ / আউট সোর্সিং অফিস সহকারি আব্দুল কাদেরের দাপটে ত্রিশাল পিআইও কার্যালয়ের হযবরল অবস্থা

আউট সোর্সিং অফিস সহকারি আব্দুল কাদেরের দাপটে ত্রিশাল পিআইও কার্যালয়ের হযবরল অবস্থা

খােলাবাজার ২৪,শুক্রবার, ০৩মে ২০১৯ঃ ময়মনসিংহ সংবাদদাতাঃ ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়টিতে চলছে এক ব্যক্তির দোর্দন্ড প্রতাপ প্রশাসনের উপর মহলের প্রভাবকে সঙ্গে নিয়ে তাদের নাম বিক্রি, প্রভাবকে দুর্নীতির ভেতর ঢুকিয়ে দিয়ে প্রশাসনের সুনাম ও ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন এমন কি ওই একক ব্যক্তির দুর্নীতি আর অর্থলোপকে জায়েজ করতে নিজে থাকছেন পর্দার আড়ালে। তবে ত্রিশাল উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ের (পিআইও) কর্মচারীদের কাছে এই নাম এখন প্রকাশ্য।

অভিযোগ প্রকাশ, তিনি ত্রিশাল পিআইও অফিসে কর্মরত আউটসোর্সিং বিভাগের হয়ে অফিস সহায়ক আব্দুল কাদের। কাদের ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসনের একজন শীর্ষ কর্মকর্তার পরিচয় দিয়ে তাকে তার আত্মীয় বলে কারণে-অকারণে পিআইও, উপ-সহাকারী প্রকৌশলী, অফিস সহকারী এবং সংশ্লিষ্ট কর্মচারীদের সাথে অশোভন আচরণ করে থাকেন। কিন্তু আত্মীয় বলে পরিচয় দিয়ে প্রশাসেনর শীর্ষ কর্মকর্তাটিকে জনমনে বিতৃষ্ণা ধরিয়ে দিয়েছেন ন্যূনতম অফিস সহায়ক আব্দুল কাদের। অফিস সংশ্লিষ্টরা জানান এতে ক্ষতি ও ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে পিআইওর। অভিযোগে জানা গেছে, কাদেরের এই আস্ফলানে ত্রিশাল ইউএনও নিরব, পিআইও নিরব এমন কি অফিসের সকল স্টাফরাও অজ্ঞাত কারণে নিরব থাকেন। ফলে ত্রিশাল উপজেলার ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরে ধস নেমেছে।

জানা গেছে আব্দুল কাদেরের বাড়ী নান্দাইল উপজেলায়। চাকরী জীবনের প্রথমে তিনি নরসিংদী জেলার শিবপুর উপজেলায় একই পদে চাকরী শুরু করেন। চাকরী জীবনের শুরুটা তিনি বর্তমান অবস্থার মতো একইভাবে করতে থাকেন। অফিস মহল এবং জনমনে প্রশ্ন প্রশাসনের ওই শীর্ষ কর্মকর্তার সাথে আসলে তার সম্পর্কটা কী? জানা গেছে পিআইও, উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন চেয়ারম্যান, ইউপি মেম্বার, ইউপি সচিবগণ পর্যন্ত অজানা ভয়ে আতঙ্কে রয়েছেন যার মূল সমস্যা আব্দুল কাদেরের সাথে ওই শীর্ষ কর্মকর্তার হট কানেকশন।

আরও জানা গেছে কিছুদিন আগে আরেকজন অফিস সহকারী সুজন মিয়া, আব্দুল কাদেরের এই অপকর্মের প্রতিবাদ করলে আব্দুল কাদেরের সাথে তার হাতাহাতি হয়েছে কারণ সুজন মিয়া কাদেরের উৎকোচ গ্রহণের প্রতিবাদ করেছিল। কিন্তু অফিসিয়ালি প্রতিবেদন যা আব্দুল কাদেরের পক্ষে। এ নিয়ে সংশ্লিষ্ট বিভাগে অসন্তোষ বেড়েছে। অভিযোগ ররেছে জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা কাদেরের পক্ষে মোটা অংকের উৎকোচ নিয়ে তার পক্ষে প্রতিবেদন পেশ করেন। অন্যদিকে সুজন মিয়াকে অন্যত্র বদলী করা হয়। এই সুযোগে আব্দুল কাদের তার পছন্দসই অফিস সহকারী কাইমুলকে উৎকোচের বিনিময়ে জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তার মাধ্যমে বদলী করে নিয়ে আসে। আব্দুল কাদের মাস্টার রোল ছাড়া কাইমুলকে ডিও প্রস্তুত করতে বলেন এবং কাইমুলও তৎক্ষনাত সরকারি নীতিমালা লঙ্ঘন করে ডিও প্রস্তুত করতে বাধ্য হন।

একজন আউটসোর্সিং অফিস সহায়কের দাপটে ত্রিশাল উপজেলা ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা পিআইও অফিসের অবস্থা এখন হ য ব র ল অবস্থা। সংশ্লিষ্ট অফিস এবং জনমনে যুগপৎ প্রশ্ন রেখে চলেছে কাদেরের কাজকর্ম, চালচলন ও অশোভন কথাবার্তা সেই সাথে অসৎ উপায়ে অর্জিত টাকার ওপর দুর্নীতি দমন কমিশন দুদক এর মাধ্যমে তদন্ত করে আব্দুল কাদেরকে জরুরী ভিত্তিতে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে ত্রিশাল উপজেলার ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা পিআইও অফিসকে উদ্ধার করার জোর দাবি জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট ভূক্তভোগী মহল।

Print Friendly, PDF & Email

About kholabazar 24