Thursday , October 10 2019
ব্রেকিং নিউজ :

Home / আন্তর্জাতিক / ভারতের চাপেও কাশ্মীর সঙ্কট সমালোচনায় মালয়েশিয়া অনড়

ভারতের চাপেও কাশ্মীর সঙ্কট সমালোচনায় মালয়েশিয়া অনড়

খােলাবাজার ২৪,বুধবার,০৯অক্টোবর,২০১৯ঃ ভারতের চাপে কাশ্মীর নিয়ে নিজের অবস্থান থেকে সরে যাবে না মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ। মঙ্গলবার (৮ অক্টোবর) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা জানান তিনি।

তিনি বলেন, কারো পক্ষ হয়ে কিংবা কারো ভয়ে সমালোচনা ত্যাগ করছি না। তবে দুই পক্ষকেই আলোচনা সাপেক্ষে বিাবদ মিটিয়ে নেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।

এ ছাড়া কাশ্মীর বিতর্ক নিরসনে উপায় ও উপকরণ খুঁজে বের করার আহ্বান জানিয়েছেন এই নবতিপর প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, রুশ শহর ভ্লাডিভোস্টকে বৈঠকের সময় নরেন্দ্র মোদির কাছে তিনি ইস্যুটি তুলেছিলেন।

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাতিসংঘের প্রস্তাবের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। কাশ্মীর সঙ্কট নিরসনে আলোচনা, সালিশি ও আদালতের মাধ্যমে সঙ্কট সমাধান করাই হচ্ছে আমাদের নীতি।

তিনি বলেন, জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে জাতিসংঘের প্রস্তাব থাকা সত্ত্বেও ভারত সেখানে হানা দিয়েছে এবং দখলদারিত্ব কায়েম করেছে। সমস্যার সমাধান করতে ভারতের উচিত পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা করা। জাতিসংঘকে তুচ্ছ করার মধ্য দিয়ে তা জাতিসংঘ ও আইনের শাসনের প্রতি আরেক ধরনের অবজ্ঞাকরণের দিকে নিয়ে যাবে।

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিয়ে এর আগে অধিকৃত কাশ্মীরে ভারতের দখলদারিত্ব ও নৃশংসতার সমালোচনা করেছেন মাহাথির মোহাম্মদ। সেখানে তিনি শান্তিপূর্ণ উপায়ে ভারত-পাকিস্তানকে কাশ্মীর সংকট সমাধানের আহ্বান জানিয়েছিলেন।

তার ওই বক্তব্যের পর ভারতীয় উগ্র হিন্দুত্ববাদী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমর্থকরা সামাজিকমাধ্যমে বয়কট মালয়েশিয়া প্রচার চালিয়েছেন।

তবে মাহাথির বলেন, জাতিসংঘে তার দেয়া ভাষণের প্রেক্ষাপটে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে কোনো বার্তা তাদের কাছে আসেনি।

তিনি বলেন, এযাবৎ আমার কাছে কোনো প্রতিক্রিয়া আসেনি। মোদিকে আমি বলেছি- তার যদি কোনো অসন্তোষ থাকে, তবে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করতে।

এর আগে মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক সাইফুল্লাহ আবদুল্লাহ বলেছেন, ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে যেকোনো ধরনের নিপীড়নের বিরুদ্ধে মালয়েশিয়া জোরালো ভূমিকা রাখবে। মালয়েশিয়া এমন একটি পররাষ্ট্রনীতির চর্চা করে, যেটি কোনো জোটকেন্দ্রিক না।

অবৈধ রাষ্ট্র ইসরাইল ছাড়া সবার সঙ্গে আমরা বন্ধুত্ব ও বাণিজ্য চাই বলেও জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা জম্মু-কাশ্মীর ছাড়াও রোহিঙ্গা ও কম্বোডিয়ার গণহত্যার বিরুদ্ধেও কথা বলেছি।

সাইফুল্লাহ বলেন, কাশ্মীর নিয়ে দৃষ্টিভঙ্গি জানতে ড. মাহাথিরকে ফোন করেছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। রাশিয়ার একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনে মোদির সঙ্গে আলোচনায়ও নিজের অবস্থান জানিয়েছেন তিনি।

কাশ্মীর সংকট নিরসনে সরকার কী করছে প্রশ্নে মালয়েশিয়ার ওই মন্ত্রী বলেন, পররাষ্ট্রনীতি কাঠামোয় সম্প্রতি নতুন একটি অধ্যায় চালু করা হয়েছে। তাতে জম্মু ও কাশ্মীরসহ নিপীড়িতদের প্রতিনিধি হয়ে লড়াই করে যাওয়ার কথা বলা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

About kholabazar 24