Monday , November 4 2019
ব্রেকিং নিউজ :

Home / বিনোদন / হাসপাতালেই জন্মদিন কাটাচ্ছেন এন্ড্রু কিশোর

হাসপাতালেই জন্মদিন কাটাচ্ছেন এন্ড্রু কিশোর

খােলাবাজার ২৪,সোমবার,০৪নভেম্বর,২০১৯ঃ বাংলাদেশের প্লেব্যাকের সম্রাট খ্যাত কিংবদন্তি শিল্পী এন্ড্রু কিশোর। চার দশকের বেশি সময় ধরে সংগীতপ্রেমীদের মাতিয়ে রেখেছেন তিনি। অসংখ্য কালজয়ী গানের শিল্পী এন্ড্রু কিশোর।  সুখ-দুঃখ, হাসি-আনন্দ, প্রেম-বিরহ সব অনুভূতির গানই তার কণ্ঠে পেয়েছে অনন্য মাত্রা।

আজ সোমবার এ কালজয়ী সংগীতশিল্পীর জন্মদিন। ১৯৫৫ সালের ৪ নভেম্বর রাজশাহীতে জন্মগ্রহণ করেন এন্ড্রু কিশোর। সময় সংবাদের পক্ষ থেকে তার জন্মদিনের শুভেচ্ছা।

আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এ শিল্পী কখনই জন্মদিনে বিশেষ কিছু করেন না। তারপরও এবারের জন্মদিনটা তার জন্য ভিন্ন। কারণ এবারের জন্মদিনটা তার কাটছে সিঙ্গাপুরের হাসপাতালে। ক্যানসার আক্রান্ত এন্ড্রু কিশোরের চিকিৎসা চলছে সুদূর সিঙ্গাপুরে। দেশটির জেনারেল হাসপাতালে গত ১১ সেপ্টেম্বর থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি। ১২ সেপ্টেম্বর তার বায়োপসি করা হয়। এরপর বিভিন্ন পরীক্ষা নিরীক্ষার পর চিকিৎসকরা জানান তার শরীরে ক্যানসার বাসা বেঁধেছে। সব মিলিয়ে ১৮টি কেমোথেরাপি দিতে হবে!

জানা গেছে, সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে কেমোথেরাপিসহ অন্যান্য চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে একমাসের মতো থাকলেও কিছুদিন হলো হাসপাতালের কেবিন ছেড়েছেন। বর্তমানে তিনি সিঙ্গাপুর ওয়েন রোডের শাহেদ অ্যাপার্টমেন্টে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকছেন। সেখানে তার সঙ্গে আছেন পরিবারের কয়েকজন সদস্য।

এন্ড্রু কিশোর জন্মদিনে দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়ে বলেছেন, সব শ্রোতা-ভক্ত ও দেশবাসীর কাছে দোয়া চাচ্ছি। আমি সুস্থ হয়ে আবারও আপনাদের মাঝে ফিরতে চাই। আবারও গানে ফিরে শিল্পী জীবনটাকে নতুন করে শুরু করে শুরু করতে চাই।

এন্ড্রু কিশোর আব্দুল আজিজ বাচ্চুর অধীনে প্রাথমিকভাবে সঙ্গীত পাঠ গ্রহণ শুরু করেন। মুক্তিযুদ্ধের পর কিশোর নজরুল, রবীন্দ্রনাথ, আধুনিক, লোক ও দেশাত্মবোধক গান শ্রেণি রেডিও মধ্যে তালিকাভুক্ত ছিল। বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের পর, কিশোর নজরুল, রবীন্দ্রনাথ, আধুনিক, লোক ও দেশাত্মবোধক গান শ্রেণি রাজশাহী বেতার সঙ্গে তালিকাভুক্ত ছিল।

এন্ড্রু কিশোরের চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক যাত্রা শুরু হয় ১৯৭৭ সালে আলম খান সুরারোপিত মেইল ট্রেন চলচ্চিত্রের ‘অচিনপুরের রাজকুমারী নেই যে তার’ কেউ গানের মধ্য দিয়ে। তার রেকর্ড করা দ্বিতীয় গান বাদল রহমান পরিচালিত এমিলের গোয়েন্দা বাহিনী চলচ্চিত্রের ‘ধুম ধারাক্কা’। তবে এ জে মিন্টু পরিচালিত ১৯৭৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত প্রতীজ্ঞা চলচ্চিত্রের ‘এক চোর যায় চলে’ গানটি প্রথম দর্শক শোনে এবং সেটি জনপ্রিয়তা লাভ করে। তিনি অন্যান্য প্লেব্যাক গান রেকর্ড করেন যেমন ‘ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে’, ‘ভালোবেসে গেলাম শুধু’ এর মত জনপ্রিয় সব গান।

Print Friendly, PDF & Email

About kholabazar 24