Friday , August 23 2019
ব্রেকিং নিউজ :

Home / লাইফ স্টাইল / সন্তানকে লম্বা করার উপায়…

সন্তানকে লম্বা করার উপায়…

খােলাবাজার ২৪,সোমবার ,১৫জুলাই,২০১৯ঃ আজকাল বাবা-মায়েদের চিন্তার একটি কারণ হলো তার সন্তান লম্বা হবে কি না? তারা আশায় থাকেন- সন্তান লম্বা-চওড়া আর স্বাস্থ্যবান হোক। এর জন্য চেষ্টারও কমতি নেই। খাওয়া-দাওয়া থেকে শুরু করে বিভিন্ন ব্যায়ামও চালিয়ে থাকেন। কিন্তু ফলাফল তেমন একটা আসছে না। এগুলো করতে হবে সঠিক সময়ে সঠিক পদ্ধতিতে। তবেই ফল পাবেন।

উচ্চতা বৃদ্ধি কিন্তু কোনও ম্যাজিক নয় যে রাতারাতি সেটা হয়ে যাবে। টিভির বিজ্ঞাপনে অনেক সময়ে দেখা যায় অনেক ব্র্যান্ড এমন কিছু প্রতিশ্রুতি দেয় যেন মনে হয় কয়েক সপ্তাহে উচ্চতা বেড়ে যাবে। কিন্তু আদতে ব্যাপারটা তা নয়। বাচ্চাদের উচ্চতা বৃদ্ধির জন্য শুধু চাই ধৈর্য্য আর কিছু নিয়ম। জেনে নিন সেগুলো :

ব্যাল্যান্স ডায়েট

সন্তান সুন্দর ভাবে বেড়ে উঠুক যদি চান তবে চিপস, বার্গার, কোল্ড ড্রিঙ্কস এগুলো থেকে সন্তানকে দূরে রাখুন। পুষ্টিকর খাবারের অভ্যাস গড়ে তুলুন। যেসব খাবারে প্রোটিন রয়েছেন যেমন- মাছ, মাংস, ডিম, সয়াবিন আর ডেয়ারি প্রোডাক্ট অবশ্য রাখবেন। এগুলো পেশি মজবুত করবে, হাড় শক্ত করে আর উচ্চতা বাড়াতে সাহায্য করে। আর কার্বোহাইড্রেট ও ফ্যাট যেন শরীরে বেশি না যায়, সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন। কেক, পেস্ট্রি, সোডা, মিষ্টি এই সবের থেকে দূরে থাকাই ভালো। ভিটামিন ডি আর ক্যালসিয়াম যেন শরীর পায়। ক্যালসিয়ামের জন্য সবুজ সবজি, ডেয়ারি প্রোডাক্ট খেতে পারেন। গবেষণায় দেখা গেছে যে জিঙ্ক খুব ভালো উচ্চতা বাড়ায়। তাই জিঙ্ক আছে এমন খাবার যেমন বাদাম ও কুমড়া রাখুন খাবারে।

স্ট্রেচিং এক্সারসাইজ

স্ট্রেচিং ব্যায়াম উচ্চতা বৃদ্ধির জন্য খুবই কার্যকর। আপনি আপনার বাচ্চাকে বলতে পারেন দেওয়ালের দিকে উলটো দিক করে দাঁড়াতে পিঠে ভর দিয়ে। তারপর হাত সামনের দিকে বাড়িয়ে স্ট্রেচ করতে। আবার একই ভাবে দেওয়ালের দিকে উলটো দিক করে পিঠে ভর দিয়ে পায়ের আঙ্গুলের উপর বসুক। তারপর যতখানি সম্ভব নিজের পায়ের পেশি স্ট্রেচ করুক।

এভোবে দশ বার করে দিনে দু বার করুক। আরেকটা ব্যায়াম আছে খুব ভালো। মাটিতে আপনার বাচ্চাকে শুতে বলুন চিত হয়ে। তারপর কোমর পর্যন্ত উঠে পায়ের বুড়ো আঙুল ধরতে বলুন। এতেও কিন্তু খুব ভালো পেশি বৃদ্ধি হয়।

হ্যাঙ্গিং এক্সারসাইজ

প্রতিদিন মাঠে বা বাড়িতে কোনও উঁচু বার ধরে ঝোলা উচ্চতা বাড়াতে খুবই কার্যকর। এটা তার স্পাইনের গঠনে খুব সাহায্য করে। পুল আপ আর চিন আপ এর মতো ব্যায়ামও করতে পারে। এসবই উচ্চতা বাড়ানোর জন্য খুবই ভালো।

যোগ ব্যায়াম

যোগ বা আসন খুবই কার্যকরী বাচ্চার বৃদ্ধির জন্য। এটি সম্পূর্ণভাবে আপনার বাচ্চার বৃদ্ধির খেয়াল রাখবে। আরেকটি ভালো আসন হল চক্রাসন। এক্ষেত্রে শুরুতে বাচ্চাকে মাটিতে শুতে হবে চিত হয়ে। তারপর পা ভাঁজ করতে হবে। হাত কনুই পর্যন্ত ভাঁজ করে মাথার পেছনে কানের কাছে রাখতে হবে। এবার হাত আর পায়ের জোরে শরীর তুলতে হবে। তারপর হাত আস্তে আস্তে পেছনে এনে পায়ের পাতা ছুঁতে হবে। তখন শরীরের আকৃতি হয়ে যাবে চক্রের মতো। এটিও স্পাইনের গঠন খুব ভালো করে।

স্কিপিং

এটি বাচ্চাদের খুব প্রিয় একটা খেলা। এতে অনেক বার বাচ্চাকে শূন্য থেকে উপরে উঠতে হয়। ফলে কিছু ইঞ্চি উচ্চতা বাড়ার সম্ভাবনা সব সময় থেকেই যায়। তাই বাচ্চাদের প্রতিদিন এই অভ্যাসটি চালিয়ে যেতে বলুন।

সাঁতার

সাঁতারকে সারা শরীরের ব্যায়াম ধরা হয়। ব্যায়াম করুক বা নাই করুক সাঁতার কাটলে কিন্তু সব উপকার পেতে পারে। এতে হাত পায়ের সামগ্রিক ব্যায়াম হয়। তাই বাচ্চা সুন্দরভাবে বেড়ে উঠতে পারে। এটি একটি অন্যতম স্ট্রেচিং এক্সারসাইজও বটে।

অ্যাঙ্কল ওয়েট

এটি আরেক অনবদ্য ব্যায়াম। এটি মূলত শরীরের নিচের অংশের বৃদ্ধির জন্য বেশি কাজ দেয়। পায়ের হাঁটুর কাছে যে কার্টিলেজ আছে তা এই ব্যায়ামের ফলে বৃদ্ধি পায়। ফলে আপনার বাচ্চার উচ্চতা বাড়বে। কিন্তু খুব বেশি ভার যেন আপনার বাচ্চা না নিয়ে ফেলে।

জগিং

আরেকটি উপকারী ব্যায়াম হলো জগিং। যা শুধু বাচ্চার জন্য নয়, আপনার জন্যও খুব লাভজনক। রোজ আপনার বাচ্চা জগিং করে এটা দেখুন আর সঙ্গে সঙ্গে আপনিও করুন। এটা কিন্তু বেশি আনন্দ দেবে ওকে।

বাচ্চার বৃদ্ধির জন্য এই আটটি উপায়ই যথেষ্ট। নিয়ম করে প্রতিদিন এগুলো চর্চায় রাখুন। আপনার আশা সফল হবে।

Print Friendly, PDF & Email

About kholabazar 7x24