Tue. Apr 20th, 2021


খােলাবাজার২৪,বুধবার,১২ ডিসেম্বর ২০১৮ঃ  ফরিদপুরে আওয়ামী লীগ নেতা এবং নোয়াখালীতে যুবলীগ নেতাকে হত্যায় যে বিএনপি জড়িত, সে বিষয়ে প্রমাণ থাকার কথা জানিয়েছেন ওবায়দুল কাদের।

ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘মির্জা ফখরুল সাহেব সহিংসতা-নিপীড়নের কথা বলছেন। কিন্তু নোয়াখালী ও ফরিদপুরের হত্যাকাণ্ড কারা করেছে তার প্রমাণ আমাদের কাছে আছে।

আজ বুধবার আনুষ্ঠানিকভাবে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী প্রচার শুরুর অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছিলেন কাদের।

আগের দিন ফরিদপুরে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা ইউসুফ আল মামুন এবং নোয়াখালীতে একটি ওয়ার্ড যুবলীগের নেতা মো. হানিফকে হত্যা করা হয়। এর মধ্যে ইউসুফকে পিটিয়ে এবং হানিফের চোখে মরিচের গুড়া দিয়ে মাথা থেঁতলে এই গুলি করা হত্যা করা হয়। দুটি ঘটনাতেই বিএনপির নেতা-কর্মীরা জড়িত বলে অভিযোগ উঠেছে।

এই দুটি ঘটনায় গণমাধ্যম যথাযথভাবে সংবাদ প্রকাশ করেনি বলেও অভিযোগ করেন কাদের। বলেন, ‘আমাদের দুইজন কর্মী নৃশংসভাবে নিহত হলো। সে নিউজটা প্রচার হলো না। নিউজ হলো মির্জা ফখরুল। ঠাকুরগাঁওয়ের তার ওপর নাকি হামলা হামলা হয়েছে!

‘আমাদের পার্টি অফিস বিএনপির নেতাকর্মীরা ভেঙে দিয়েছে। সাধারণ জনগণ সেটা প্রতিহত করেছে। তারপরও ফখরুল সাহবের ওপর হামলা হলো, তার গাড়ির কাঁচ ভাঙলো না, একটা আঁচড়ও পড়লো না! কিন্তু কিছু কিছু মিডিয়া প্রচার করলো ফখরুলের ওপর হামলা হয়েছে।

গণমাধ্যমকর্মীদের কাদের বলেন, ‘আপনাদের বলব, নিউজ না করেন, বিভ্রান্ত করবেন না। বাংলাদেশের স্যোশাল মিডিয়া এখন শক্তিশালী, মানুষ এমনিতে জেনে যাবে।

২০০৮ সালের জাতীয় নির্বাচনের চেয়ে এবার জনমত আওয়ামী লীগের পক্ষে আরো বেশি বলেও দাবি করেন ওবায়দুল কাদের। ১৯৭৩ সালের পর অংশগ্রহণমূলক কোনো নির্বাচনে সেবারই সবচেয়ে বেশি ভোট এবং আসন পেয়েছিল আওয়ামী লীগ। প্রায় ৫০ শতাংশ ভোট এবং ২৩০টি আসনে জয় পায় তারা।

বিএনপিও অবশ্য তাদের পক্ষে জোয়ার দেখছে। আর একে কটাক্ষ করে আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘গণভাটাকে গণজোয়ার বলছে বিএনপি। বিএনপির ভাঙা হাট আর জমছে না। আমি ঢাকা থেকে নোয়াখালী গেলাম, জোয়ার তো দূরের কথা, একটা ধানের শীষের স্লোগানও শুনতে পেলাম না। 

‘আমি এতোটুকু বলতে পারি ২০০৮ সালেও নৌকার পক্ষে যে গণজোয়ার আমি দেখিনি, এবার তা দেখছি।’

‘আমার নির্বাচনী আসনে বিএনপির প্রার্থী মওদুদ আহমদ। তিনি এলাকায় যান না। ১৫ বছর পর তিনি এলাকায় গেলেন। ভেবেছিলেন তার যাওয়াতে হাজারে হাজারে লোক নেমে আসবে! সেদিন শোডাউন করলেন। খবর নিয়ে জানতে পেরেছি তার সঙ্গে সর্বোচ্চ ১৫০০ থেকে দুই হাজার লোক হয়েছিল। এই তাদের গণজোয়ার! আমরা তো পথসভা করলেও ৭০-৮০ হাজার লোক হয়ে যায়।’

সরকারি সুবিধা নিয়ে ভোট করছেন বলে মওদুদ আহমদ যে অভিযোগ তুলেছেন, তারও জবাব দেন কাদের। বলেন, ‘আমি চ্যালেঞ্জ করে বলছি প্রচারে আমি সরকারি গাড়ি ব্যবহার করি না। প্রচারে যাওয়ার আগে আমার গাড়ির পতাকা খুলে ফেলা হয়। প্রটোকল ব্যবহার করি না। তবে আমি দলের সেক্রটারি ও মন্ত্রী হিসেবে নির্বাচন কমিশন প্রাপ্য নিরাপত্তা দেয়, যা প্রার্থী হিসেবে মওদুদ সাহেবও পান।’

৫০ শতাংশ সুষ্ঠু ভোট হলে জেবার বিষয়ে বিএনপির বক্তব্য নিয়েও কথা বলেন আওয়ামী লীগ নেতা। বলেন, ভোট শতভাগ সুষ্ঠু হবে। আর বিএনপির অবস্থা মুসলিম লীগের মতো হবে।