শনি. সেপ্টে ১৮, ২০২১

খােলাবাজার২৪,শনিবার,২৮আগস্ট,২০২১ঃ বানারীপাড়া প্রতিনিধি: বরিশালের বানারীপাড়ায় মোবাইল কোর্ট করেও বন্ধ করা যাচ্ছেনা অবৈধ ডকইয়ার্ড বরিশালের বানারীপাড়ায় উপজেলা প্রশাসন জনবসতি পূর্ন এলাকায় অবৈধ ডকইয়ার্ড বন্ধ করে দিলেও পুনরায় চলছে কার্যক্রম।উপজেলার উদয়কাঠি ইউনিয়নের তেতলা গ্রামে বসত বাড়ির আঙিনায় ২০১৯ সনে ওই এলাকার মতিউর রহমানের ছেলে মোঃ মহসিন ।পরিবেশ অধিদপ্তর সহ সকল ধরনের আইন অমান্য করে অবৈধ ভাবে মা-বাবার দোয়া নামক একটি ডকইয়ার্ড চালু করেন।
এ ব্যাপারে স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্থরা বিভিন্ন সরকারী দপ্তরে ডকইয়ার্ড বন্ধের আবেদন করলে তৎকালীন বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ আব্দুল্লাহ সাদীদ এর নির্দেশে সহকারী কমিশনার (ভূমি) অনুপ দাস ২০২০ সনের ৯ মে ওই অবৈধ ডকইয়ার্ডে একটি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে জরিমানা আদায় সহ ডকইয়ার্ডের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়।সম্প্রতি চলতি বছরের ১০ মার্চ সুচতুর মহসিন তার অবৈধ ভাবে গড়ে তোলা ডকইয়ার্ডটির নাম পরিবর্তন করে মেসার্স সেলিম রেজা নাম ব্যবহার করে পরিচালনা শুরু করেন।তার ওই অবৈধ ডকইয়ার্ডের হ্যামারের শব্দ সহ অন্যান্য কাজের বিকট শব্দে স্থানীয় বাসিন্দারা অতিষ্ট অবস্থায় দিনযাপন করছে।
এদিকে অবৈধ ডকইয়ার্ড নাম পরিবর্তন ও সরকারী আইন অমান্য করে পরিচালনার সংবাদ পেয়ে ২৬ আগষ্ট সদ্য যোগদানকৃত উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সানজিদা রিক্তা মহসিনের অবৈধ ডকইয়ার্ডে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে তিন হাজার টাকা জরিমানা করে। ডকইয়ার্ডের কাজে ব্যবহৃত মালামাল স্থানীয় ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যানের জিম্মায় দেন।
অপরদিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কয়েক দফায় জরিমানা করে ডকইয়ার্ডের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হলেও পুনরায় ডকইয়ার্ডের কার্যক্রম চলছে বলে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।এ সম্পর্কে সহকারী কমিশনার ভূমি সানজিদা রিক্তা আজকের পত্রিকাকে  জানান, অবৈধ ডকইয়ার্ড মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে আমি জরিমানা করেছি তবে আবার যে চালু করেছে এখন পর্যন্ত অভিযোগ আমি পাইনি যদি পাই তাহলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে ।